বিকাশ একাউন্ট ডিলিট করার সঠিক নিয়ম | How to permanently delete bKash account

 বর্তমানে বিকাশ খুবই জনপ্রিয় মোবাইল ব্যাংকিং পরিষেবার একটি নাম। বিকাশ সম্পর্কে আমরা সকলেই কম বেশি জানি। আমরা কিভাবে খুব সহজে বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারি এ সম্পর্কে সকলেই জানেন। কিন্তুু বিকাশ একাউন্টি কোন কারনে ডিলিট করতে চাইলে এর কিছু নিয়ম কানুন আছে সেটি অনেকেই জানে না। আজ আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব কিভাবে খুব সহজেই আপনার বিকাশ একাউন্টটি ডিলিট বা বাতিল করতে পারেন। এর জন্য মনোযোগ সহকারে আমার পোস্টটি পড়তে  থাকুন। আপনাদেরই উপকারে আসবে।

 

বিকাশ একাউন্ট ডিলিট করার সঠিক নিয়ম

বিকাশ একাউন্ট ডিলিট বা বাতিল করার নিয়মঃ

বিকাশ আমাদের বিভিন্ন ধরনের সুযোগ-সুবিধা প্রদান করে থাকে। তাই বর্তমানে এর জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। কিন্তুু অনেক সময় এমন হয়ে থাকে যে আপনার বিকাশ একাউন্টটি বাতিল করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে।  এর কারন হতে পারে। আপনি অন্য একজনের স্মার্ট কার্ড নিয়ে বিকাশ একাউন্টটি খুলেছেন এমন হতে পারে।

আবার আপনি অন্য একজনের এন আইডি দিয়ে বিকাশ একাউন্ট খুলেছেন কিন্তুু তিনি বর্তমানে বেঁচে নেই। আপনার বিকাশ একাউন্টটি বারবার হ্যাক হচ্ছে বা আপনার পরিবারের একাধিক বিকাশ একাউন্ট নাম্বার খোলা আছে। আপনার একাধিক সিমে বিকাশ একাউন্ট খোলা আছে এরকম বিভিন্ন কারণে বিকাশ একাউন্টটি ডিলিট করার প্রয়োজন হয়ে পড়ে। একাউন্টে ডিলিট করা অত্যন্ত সহজ একটি কাজ। এর জন্য সহজ কিছু নিয়ম রয়েছে।

বিকাশ একাউন্ট ডিলিট বা বাতিল করার নিয়ম নিম্নরূপঃ

সর্বপ্রথম আপনাকে বিকাশ একাউন্টটি বাতিল করার জন্য বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে।
       কাস্টমার কেয়ার থেকে আপনাকে কিছু ডকুমেন্ট দেখাতে বলবেন আপনার বিকাশ একাউন্ট ডিলিট করার জন্য।

নির্দেশনা গুলি নিম্নরূপঃ

১. যার বিকাশ একাউন্টি ডিলিট করতে হবে তাকে সরাসরি বিকাশ কাস্টমার কেয়ারে উপস্থিত থাকতে হবে।

২. প্রথমে আপনাকে বিকাশ একাউন্টের ব্যালেন্স শূন্য করতে হবে। আপনার বিকাশ একাউন্টে টাকাটি পরিচিত কারো নাম্বারে পাঠিয়ে দিতে পারেন।

৩. যিনি বিকাশ একাউন্টি ডিলিট করবেন তার জাতীয় পরিচয়পত্র বা তিনি যেটি দিয়ে বিকাশ একাউন্টটি খুলেছিলেন উক্ত ডকুমেন্টটি সাথে রাখতে হবে।

৪. যে সিম দিয়ে বিকাশ একাউন্টটি খোলা আছে সেটি সাথে রাখতে হবে।

ডকুমেন্টগুলো নিয়ে আপনাকে কাস্টমার কেয়ারে যেতে হবে এবং বলতে হবে আমার বিকাশ একাউন্টটি ডিলিট করে দিন।  ডকুমেন্ট গুলি কাস্টমার কেয়ার নিয়ে তারা আপনার অ্যাকাউন্টটি তাদের কিছু প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ডিলেট করে দিবেন।

টেলিটক সিমের প্রয়োজনীয় সকল কোড

পরিশেষে বলা যায়, আপনারা যদি উপরে বর্ণিত উপায় গুলি অবলম্বন করেন তাহলে অতি সহজেই বিকাশ একাউন্টটি ডিলিট করতে পারবেন।


আমার সাইটিতে ভিজিট করার জন্য সবাইকে ধন্যবাদ। আমি বিকাশ এর ব্যবহার ও সুযোগ সুবিধা নিয়ে আমার সাইটে অনেকগুলি পোস্ট দিয়েছি। ভিজিট করলে আপনাদেরই অনেক উপকারে আসবে। বিকাশ সম্পর্কে পরিপূর্ণ ধারণা লাভ করতে পারবেন। আপনারা আবারও আমার সাইটিতে ভিজিট করবেন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url