Life Changing Helpful Think | জীবন পরিবর্তন হতে বাধ্য

 আশাকরি বন্ধুরা সকলে ভালো আছেন। আজ আমি আপনাদের নতুন একটি বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি। এ বিষয়টি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আজ আমি আপনাদের মন ভালো করার মতো এমন কিছু বিষয় নিয়ে আলোচনা করব। যে বিষয়গুলি আপনারা যদি মনোযোগ সহকারে পড়েন। তাহলে আপনাদের মন যদি কখনো খারাপ হয়েও থাকে লেখাটি পড়ার পর আশা করি, আপনাদের মন ভালো হয়ে যাবে।

 
life Changing Helpful Think
 

জীবনকে পরিবর্তন করতেই হবেঃ

জীবনে এমন কিছু সময় বা মুহূর্ত আসে যখন মানুষ হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়ে। এই কঠিন সময় বা মুহূর্তটি প্রত্যেকটি মানুষের জীবনে আসে। কিন্তুু অনেকে জানে না এই কঠিন সময়টি কিভাবে পাড়ি দিতে হবে। কিভাবে জীবনটাকে পরিচালিত করতে হবে তাহলে জীবন থেকে দুঃখ দূরে যাবে।

 যারা আছেন এরকম সময়ের মধ্য দিয়ে জীবনটাকে অতিবাহিত করছেন। জীবনে কোন দিশা খুঁজে পাচ্ছেন না। কি করবেন, কি করবেন না কিছুই বুঝতে পারছেন না। এমন সময় আপনাদের করণীয় এমন একটি বিষয় যেটি আপনার জীবনটাকে বদলে দিতে পারে।

মানুষের জীবনে এমন কিছু মুহূর্ত বা সময় আছে যখন সে বড় একা হয়ে যায়। এ সময় তার করণীয় স্রষ্টার প্রতি বিশ্বাস রেখে স্রষ্টাকে নিজের মনের সকল কথা বলা। তিনি যেন আপনার জীবনের চলার পথকে সুন্দর করেন। 


তারপর আপনার করণীয় পৃথিবীর বিখ্যাত মনীষীদের জীবনী বা অনুপ্রেরণামূলক উক্তিগুলি অনুসরণ করা। কারণ আপনি এখন যে সময়টির মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন  তারাও একসময় এরকম কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে জীবন অতিবাহিত করেছেন। কিন্তুু কঠিন সময় তাদের জীবনেও এসেছে। হতাশা না হয়ে সামনে এগিয়ে গিয়েছেন। আর তাই তারা বিখ্যাত হতে পেরেছেন।

জীবন কখনো থেমে থাকে না। জীবনে কঠিন সময় আছে এবং তা চলেও যায়। ঐ কঠিন সময়ে আপনাকে সৃষ্টিকর্তার কথা মনে রাখতে হবে। সৃষ্টিকর্তার প্রতি বিশ্বাস হারালে চলবে না। ধৈর্য এবং সাহস রাখতে হবে। মনীষীদের জীবনী বা উক্তি পড়তে হবে।

আপনাকে কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে সহায়তা করবে। যেমন দিনের পর রাত আসে, রাতের পর দিন আসে। সুখ-দুঃখ ঠিক এরকমই। আপনার এখন সময় খারাপ যাচ্ছে বলে কখনো মনে করবেন না আপনার পরবর্তী সময়ও খারাপ যাবে।

এই খারাপ সময় থেকেও যদি আপনার কর্ম সঠিক করেন। তাহলে একসময় আপনার এই খারাপ সময়টা কেটে যাবে, দেখবেন আপনার জীবনটাও সুন্দর হবে এবং সকল বিপদ কেটে যাবে।

আর যদি এই খারাপ সময়ে প্রত্যেকটা মুহূর্তের জন্য আরো দুর্বল হতাশা হয়ে পড়েন। তাহলে আপনার জীবনে দুঃখ আসতেই থাকবে। মেঘ দেখে কেউ করিস না ভয় আড়ালে তার সূর্য আছে। জীবনে কঠিন সময়ে আপনি ধৈর্য হারিয়ে ফেললে আরও কঠিন সময় আপনার জন্য অপেক্ষা করবে।

তাই আপনাকে প্রতিটি ক্ষেত্রে ধৈর্য ধরতে হবে এবং আপনার চিন্তাগুলি ইতিবাচক করতে হবে। নিজের মনটাকে বোঝাতে হবে জীবনের কঠিন সময় এক সময় পার হয়ে যাবে।এর জন্য স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা করতে হবে। স্রষ্টার প্রতি বিশ্বাস, সাহস ও মনোবল আপনাকে এই সমস্যার থেকে পরিত্রাণ ঘটাতে পারে।

আপনার যদি কোন কারনে মন খারাপ হয়ে থাকে তখন স্রষ্টার কাছে আপনার মনের কথাগুলো বলুন। জীবনের প্রতিটা কঠিন সময়ে, প্রতিটা মুহূর্তে স্রষ্টার কাছে প্রার্থনা জানান। তিনিই পারবেন আপনার সকল সমস্যার সমাধান করতে।

জীবনের কোন এক সময় প্রতিটি মানুষই একা হয়ে যায়। নিজেকে বড় অসহায় মনে হয়। তখন পাশে থেকে সাহস বা অনুপ্রেরণা দেয়ার মত কেউই থাকে না যখন। এই সময় আপনার উচিত মনোবল না হারানো, স্রষ্টাকে স্মরণ করা, আর ঐ মুহূর্তে বিখ্যাত মনীষীদের উক্তি বা জীবনী পড়া। তাহলে দেখবেন আপনার মন থেকে অনেকটা কষ্ট দূরে চলে গেছে। 

 

পরিশেষে বলা যায়, এভাবে যদি আপনার জীবনের পথটা চলতে পারেন তাহলে একদিন সকল কষ্ট জীবন থেকে হারিয়ে যাবে। নিজের মনটাকে কখনো বিষন্ন বা খারাপ রাখবেন না। ইতিবাচক চিন্তাভাবনা দিয়ে  মনটাকে ব্যস্ত করে রাখবেন। তাহলে খারাপ সময় দ্রুতই পার হয়ে যাবে। আশা রাখি, আপনার জীবনটা পরিবর্তন হবেই।


আমার সাইটে ভিজিট করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। এরকম আরো গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আমি আমার সাইটে পোস্ট করে থাকি। আপনারা আবারও আমার সাইটটি ভিজিট করবেন। আপনাদের কাছে ভালো লাগাটাই আমার লেখার সার্থকতা।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url