মাকাল ফলের উপকারিতা | মাকাল ফলের বিভিন্ন ঔষধি গুনাগুন সমূহ

 আশা করি বন্ধুরা সকলে ভালোই আছেন। আপনারা অনেকেই মাকাল ফলের নাম শুনেছেন। আজ আমি মাকাল সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। আপনারা মনোযোগ সহকারে লেখাটি পড়তে থাকুন।

 

মাকাল ফলের উপকারিতা

মাকাল ফলঃ

মাকাল ফলের নামটি আমরা সকলেই কম বেশি শুনেছি। হয়তো আমরা অনেকেই জানিনা মাকাল ফলের বিবিধ  উপকারিতা সম্পর্কে। বাগধারা তে মাকাল ফল বেশি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। বাগধারাতে বোঝানো হয়েছে যে মানুষগুলো দেখতে সুন্দর কিন্তু ভিতরের মনটা কুৎসিত অর্থাৎ মাকাল ফলের মত। মাকাল ফলের ভিতরটা দেখতে
কুৎসিত।

মাকাল ফল দেখতে কেমনঃ

মাকাল ফল দেখতে মূলত লতানো টাইপের হয়ে থাকে। ফুল দেখতে সাদা রঙের হয়ে থাকে। বিশেষ করে পটলের ফুলের মত। এর পাতার কিনারায় খসখসে কাটা অংশ রয়েছে।

লাউ, কুমড়ার মত পাতাগুলি খসখসে টাইপের হয়ে থাকে।  মাকাল গাছ লতানো টাইপের হয়ে থাকে। একটি পরিপূর্ণ গাছ ২০ থেকে ৪০ ফুট পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে । মাতাল ফল গাছের জন্মস্থান তুর্কি

 তবে এখন  ওখান থেকে এশিয়া ও আফ্রিকা মহাদেশে এসেছে। এই গাছটিতে মূলত চৈত্র বৈশাখ মাসে ফুল ফুটে থাকে এবং শ্রাবণ ভাদ্র মাসে ফল পাকার সময় হয়।

 মাকাল দেখতে লাল বর্ণের হয়ে থাকে। কাঁচা অবস্থায় সবুজ থাকে। কিছুদিন পর হলুদ টাইপের হয় এবং পাকলে পুরোপুরি লাল বর্ণ ধারণ করে থাকে। তবে এর বেশ কিছু প্রজাতি রয়েছে এর ভিতরটা খুবই বিশ্রী

 মাকাল ফলের উপকারিতাঃ

 মাকাল একেবারে অপ্রয়োজনীয় নয়। এটিতে রয়েছে বিশেষ ধরনের ঔষধিগুন। যদি ও হয়তোবা আমরা অনেকেই জানিনা। তবে পাখিরা এটি খুব পছন্দ করে। পাখিদের প্রিয় খাবারের একটি বলতে পারেন। 

পাকলে ফলটি লাল বর্ণ ধারণ করে। দেখতে এতটাই সুন্দর লাগে যে কাউকে আকৃষ্ট করার মতো। মাকাল গাছের শিকড়  কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে থাকে। যাদের ঠান্ডার সমস্যা আছে বিশেষ করে শ্বাসকষ্ট নিরাময়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে থাকে।

 মূলত ভেষজ উদ্ভিদ হিসেবে কাজ করে থাকে। হাঁপানি ও কানের পুরাতন ক্ষত, মাথা ব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্যসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় ঔষধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

 আরো পড়ুন

 জামরুলের উপকারিতা

 থাই জামরুল গাছ চেনার সহজ উপায়

 

 

পরিশেষে বলা যায়, যে কোন ফুল বা  ফল ব্যবহারের পূর্বে অবশ্যই এর সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা নিয়ে তারপর ব্যবহার করবেন। যাতে করে আপনারা বিপদের সম্মুখীন না হন। এমন অনেক প্রজাতির গাছ আছে যেগুলি  মানুষের কোন উপকারে আসে না বরং ক্ষতি সাধন করে থাকে।



আমার সাইটটি ভিজিট করার জন্য সকলকে ধন্যবাদ। আপনারা আবারও আমার সাইটটি ভিজিট করবেন। এরকম আরো অনেক বিষয় নিয়ে আমার সাইটে লিখে থাকি। আশাকরি ভিজিট করার মাধ্যমে আপনারা উপকৃত হতে পারবেন।

Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url